1. admin@ajkerdakkhinanchal.com : admin :
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০১:১২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
২ বছর আগেই ছেলের মা হয়েছেন বুবলী, বাবা শাকিব বাবুগঞ্জে ভেজাল খাবার ও নকল পণ্য বিক্রিতে ৩ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা বাবুগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ডিসি’র সহায়তা প্রদান বরিশাল জেলা পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে পারভেজ এর মনোনয়ন দাখিল দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হচ্ছে ২০২৪ সালের জানুয়ারিতে ঠাকুরগাঁওয়ের সেই মেয়েকে বিয়ে করা ইতালির নাগরিক পালাল প্রস্তাবিত বাবুগঞ্জ সেতু নির্মাণে এলাকা পরিশর্দনে এলজিইডি’র প্রকল্প পরিচালক সরকারি কর্মচারীদের গ্রেফতার করতে লাগবে না অনুমতি সকল জেলা পরিষদের নির্বাচন ১৭ অক্টোবর আপনাদের এত চাকচিক্যের জীবন যে সাধারণ মানুষ কাছে যেতে পারে না: ডিসিকে হাইকোর্ট

বিদ্যালয়ে বিতর্কিত সভাপতি নির্বাচিত করায় অভিভাবক সদস্যদের পদত্যাগ

আজকের দক্ষিণাঞ্চল
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৮ জুন, ২০২২
  • ৮০ বার পঠিত

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি: বাবুগঞ্জে ম্যানেজিং কমিটির (এডহক) সভাপতিকে অনাস্থা প্রস্তাব করে কমিটির সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন অন্যান্যরা।

ঘটনাটি ঘটেছে বরিশালে বাবুগঞ্জ উপজেলার দেহেরগতি ইউনিয়নের বাহেরচর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে।

জানা গেছে সুজন সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার খবর শুনেই তাঁকে অনাস্থা দিয়ে পদত্যাগ করেছেন অভিভাবক কমিটির অন্যান্য সদস্যরা।

বাবুগঞ্জ উপজেলার দেহেরগতি ইউনিয়নের বাহেরচর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায় আগামী ছয় মাসের জন্য এডহক কমিটির সভাপতি নির্বাচনের লক্ষ্যে বিদ্যালয় কর্তৃক ৩ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির সুপারিশ পাঠানো হয় বরিশাল শিক্ষাবোর্ডে। সেখানে সুজন আহমেদ নামে কোন সদস্যের নাম অন্তর্ভূক্ত ছিলো না। শিক্ষার্থী অভিভাবকদের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে প্রস্তাবিত তালিকার বাইরে থেকে কমিটি দিয়েছে শিক্ষা বোর্ড। এমনকি যাকে কমিটিতে সভাপতি করা হয়েছে সেই সুজন আহমেদ ওই বিদ্যালয়ের অভিভাবক বা কোনভাবেই সংশ্লিষ্ট নন বলে দাবি অভিভাবকদের। সম্পূর্ণ বোর্ডের নীতিমালা অমান্য করে সুজন আহমেদকে এডহক কমিটির সভাপতি মনোনিত করেন। ফলে শিক্ষার্থী অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে। ফলে অভিভাবক ও স্থানীয়রা বাহেরচর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করে বিক্ষোভ করেন।

পরে দেহেরগতির ইউপি চেয়ারম্যান মশিউর রহমানের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

অবরুদ্ধর পর গতকাল সোমবার এডহক কমিটির অভিভাবক সদস্য আলমগীর হোসেন, এডহক কমিটির শিক্ষক প্রতিনিধি বজলুর রহমান খান পদত্যাগ পত্র জমা দেন।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক ইউসুফ আলী বলেন, প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান বরাবর প্রেরণ করেছি।

এদিকে অভিভাবক সদস্য আলমগীর হোসেন জানান, ‘সুজন আহমেদ অবিবাহিত, স্কুলে তার কোন সন্তানও লেখাপড়া না করা। এমনকি তিনি স্কুলের দাতাও নন। এ কারণে সকল অভিভাবকরা সুজনকে সভাপতি করার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন।

তিনি আরো বলেন, ‘বিদ্যালয়ের সভা অনুষ্ঠানে সবার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী হেদেরগতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মশিউর রহমান, বজলুর রহমান এবং শাহ্ আলমসহ যে কোন একজনকে সভাপতি করার প্রস্তাব করা হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রধান শিক্ষক অনলাইনে ওই প্রস্তাবনা শিক্ষা বোর্ডে প্রেরণ করেন। এর দুদিন পরেই সেই প্রস্তাবনা উপেক্ষা করে কোন প্রকার তদন্ত ছাড়াই সুজন আহমেদকে সভাপতি করে আদেশ প্রদান করে শিক্ষা বোর্ড। এতে ক্ষুব্ধ হন অভিভাবকরা।

এদিকে না প্রকাশে অনিচ্ছুক বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীর অভিভাবকরা জানান, ইতিপূর্বে সুজন আহমেদ এক সংসদ সদস্যের ব্যক্তিগত সহকারী থাকার সুবাদে সরকারী বরাদ্দের টিআর, কাবিখা, গভীরনলকূপ বিক্রির মাধ্যমে কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এছাড়া সরকারী বরাদ্দকৃত সৌর বিদ্যুৎ এর স্ট্রিট লাইট, সোলার লাইট নিজ বাড়ির আঙিনায় স্থাপন করেছেন। যা এখনও দৃশ্যমান। এলাকায় সুদি ভাসাই (ওরফে কালাম বেপারী) নামে পরিচিত পিতার দশ বছর পূর্বেও ছিলো সাধারণ চলাচল। বিগত ৫ বছর সুজন আহমেদ উত্থাণের ফলে আজ বিপুল বিত্তবৈভবের মালিক বনে গেছেন তিনি রয়েছে আলিশান বিলাসবহুল বাড়ি,গাড়ি। বিষয়টি এলাকার মানুষ চোখে আলোচনার ঝর। তারা বলছেন দূর্নীতি পরায়ন মানুষ বিদ্যালয়ে কি উন্নয়ন করবেন! ফলে তাকে তারা প্রত্যাক্ষাণ করেছেন।

এবিষয়ে সুজন আহমেদ বলেন, বোর্ডের নিয়মানুযায়ী আমি সভাপতি। অভিভাবক সদস্যদের পদত্যাগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন বোর্ডের নিয়ম অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত নিবেন।

বরিশাল বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. ইউনুস বলেছেন, এডহক কমিটির সভাপতি বোর্ড নির্ধারন করে। তাকে বিদ্যালয়ের অভিভাবক বা সংশ্লিষ্ট হতে হবে এমন নিয়ম নেই। বোর্ড চেয়ারম্যান যাকে যোগ্য মনে করেন তাকেই এডহক কমিটির সভাপতি করতে পারেন। তবে আমরা সেটি না করে স্থানীয় সংসদ সদস্যর ইচ্ছাকে প্রধান্য দেই। ওই স্কুলের এডহক কমিটির সভাপতি যাকে করা হয়েছিলো তার বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু ডিও লেটার দিয়েছিলেন। তাই তাকে সভাপতি করা হয়েছে। এখন অন্যান্য সদস্যরা পদত্যাগ করলে আইন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © আজকের দক্ষিণাঞ্চল
Theme Customized BY Shakil IT Park